[gtranslate]

কে পাচ্ছেন লতা মঙ্গেশকরের শত শত কোটি টাকা?


ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২২, ১২:৫৫ অপরাহ্ণ / ২৭৮
কে পাচ্ছেন লতা মঙ্গেশকরের শত শত কোটি টাকা?

ঢাকাঃ ৯২ বছর বয়সে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর। গতকাল রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন তিনি। ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ভারতীয় মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে ছিলেন প্রতিদ্বন্দ্বীহীন এক সঙ্গীতসম্রাজ্ঞী হয়ে! জীবনে কোটি হৃদয়ের ভালোবাসা পেলেও পরিবারকে ভালোবাসতে গিয়ে নিজের জীবনে জায়গা হয়নি কোন প্রেমিকের। তাই বিয়ে করেননি, হয়নি ঘরসংসারও। আর সেই কারণে নেই লতার কোন উত্তরসূরি। এদিকে সাদাসিধে জীবনযাপন করলেও লতার রয়েছে অঢেল সম্পত্তি। এখন দেখার বিষয় এই প্রচুর সম্পদের মালিক হন কে?

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী লতার সম্পদের পরিমাণ ১৫ মিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১১০ কোটি টাকারও বেশি। তিনি প্রতি মাসে আয় করতেন প্রায় ৪০ লাখ টাকা। এছাড়াও ছিলো হোটেলসহ নানা ধরনের ব্যবসা।

অন্য একটি সংবাদমাধ্যমের তথ্য মতে, সব মিলিয়ে লতার সম্পদ ৫০ মিলিয়ন ডলারও ছাড়াতে পারে।

এখন প্রশ্ন হলো সন্তানহীন এই তারকার সম্পদগুলো কে পাচ্ছেন? তবে আপাতত তার উত্তর এখনও মেলেনি। দ্রুতই হয়তো জানা যাবে, তার উইলগুলো। বিষয়টি নিয়ে শিগগিরই মুখ খুলবেন তার আইনজীবী।

উল্লেখ্য, ১৯২৯ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর লতার জন্ম এক মারাঠি পরিবারে। বাবার হাত ধরেই গান ও অভিনয়ের জগতে প্রবেশ করেন তিনি। ১৩-১৪ বছরে প্রথম গান গেয়েছিলেন মারাঠি সিনেমাতে। হিন্দিতে প্রথম প্লেব্যাক করেন ‘মজবুর’ সিনেমা দিয়ে। লতার সুরেলা কণ্ঠ সিনেমা ও গানে প্রাণ ঢেলে দিত। নক্ষত্রপতনে তাই শোকস্তব্ধ দুনিয়া।

বিগত ২৭ দিন ধরে করোনার পাশাপাশি নিউমোনিয়ার সঙ্গে লড়াই করেছেন তিনি। ৯ জানুয়ারি করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছিল লতার। ৩০ জানুয়ারি তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। ভেন্টিলেশন থেকে বের করেও নিয়ে আসা হয় সুরসম্রাজ্ঞীকে। এরপর রবিবার সকালে না ফেরার দেশে চলে গেলেন লতা মঙ্গেশকর।